শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ১২:১০ পূর্বাহ্ন

সাদুল্লাপুরে দাফনের আড়াই মাস পর কবর থেকে মরদেহ উত্তোলন

নিজম্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় দাফনের আড়াই মাস পর রাশেদ শেখ (১৬) নামের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে প্রশাসন। এসময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইফতেখারুল রহমানসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের তরফ পাহাড়ী গ্রামের পারিবারিক কবর থেকে রাশেদ শেখের মরদেহ উত্তোলন করা হয়। রাশেদ শেখ ওই গ্রামের আনোয়ারুল শেখের ছেলে।

স্বজনরা জানায়, ওই গ্রামের হযরত আলীর ছেলে সাজ্জাদ হোসেন (২২) ও রাশেদ শেখ দুজন মিলে একটি মোবাইল ফোন কেনে। এরপর একই মেয়ের সঙ্গে দুইজনের প্রেম-ভালোবাসার সৃষ্টি হয়। এরই জেরে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এরই একপর্যায়ে গত ৫ জুলাই রাত ৯ টার দিকে রাশেদকে ডেকে নেয় সাজ্জাদ। এরপর কিলঘুষি ও শ্বাসরোধ করে রাশেদকে হত্যা করে। হত্যার বিষয়টি গোপন রেখে রাশেদের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে তাকে দাফন করা হয়। এতে নিহতের স্বজনদের সন্দেহ হলে আদালতে একটি হত্যা মামলা করা হয়। সেই আদালতের নির্দেশে রাশেদের মরদেহ করব থেকে উত্তোলন করেছে প্রশান।

মরদেহ উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুরের ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রর ইনচার্জ পবিত্র কুমার বলেন, ওই শিশুর মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ হলে তার বড় ভাই তুহিন শেখ বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ও আদালতের নির্দেশে আজ রোববার দুপুরে রাশেদ শেখের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করে ফরেনসিক রির্পোটের জন্য গাইবান্ধা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

All Rights Reserved © 2022 Gaibandha Report

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন