বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গোবিন্দগঞ্জের নয়ারহাটে শীতবস্ত্রের বাজারে এক ব্যবসায়ীকে জবাই করে হত্যা ইউপি নির্বাচনঃ সাদুল্লাপুরে নৌকার ভরাডুবি, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জয় ফুলছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যানের অর্থায়নে মসজিদে অনুদান গাইবান্ধায় সরিষা ফুলে ছেয়ে গেছে পুরো ফসলের মাঠ চাচার বিরুদ্ধে ৪ বছরের ভাতিজিকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে মামলা, একমাসেও গ্রেপ্তার হয়নি আসামি! ফুলছড়িতে জাতীয় কৃষক ক্ষেতমজুর সমিতির সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদান বিসমিল্লাহ ফুডে ভোক্তা-অধিকারের সাময়িক সিলগালা পলাশবাড়ীতে ইটভাটা শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার ফুলছড়িতে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক ম্যাপিং তুলসিঘাটে বাসের ধাক্কায় নানী-নাতির মৃত্যু

গাইবান্ধায় জমি সংক্রান্ত ব্যাপারে পুলিশী হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

নিজম্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৮ নভেম্বর, ২০২২

গাইবান্ধা সদর উপজেলার বল্লমঝাড় ইউনিয়নের উত্তর ধানঘড়া গ্রামের মোঃ শামছুল ইসলামের পুত্র রবিউল ইসলাম, ৮ নভেম্বর দুপুর ১ ঘটিকার সময় গাইবান্ধা জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অভিযোগ করেন যে তার পিতার ভোগদখলীয় ৫৫ শতাংশ জমি নিয়ে প্রতিপক্ষ মোঃ মমিনুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে।

এব্যাপারে গাইবান্ধা জেলার বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে বাটোয়ারা মামলা রয়েছে। এদিকে মামলার প্রতিপক্ষ মমিনুলগং এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশের এস.আই মোঃ মাহিদুল ইসলাম এর সহযোগীতায় একাধিক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করে আসছে। সংবাদ সম্মেলনে তিরি আরও জানান গত ৭ নভেম্বর সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় এসআই মোঃ মাহিদুল ইসলাম ও সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বাড়ীতে গিয়ে ছোট ভাইয়ের দরজা ভাংচুর করে এবং তার স্ত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে তার পেটে লাথি মেরে জমির শখ মিঠাবো বলে জানায়।

উক্ত এস.আই মাহিদুল ইসলাম আমাকেও হুমকি দিয়ে বলেন, বাড়ীঘর ও জমি ছেড়ে দিতে। জমি না ছেড়ে দিলে কাউকে এই বাড়ীতে থাকতে দিবে না বলেও তিনি একাধিকবার জানান। গাইবান্ধা সদর থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) আমাদেরকে নানাভাবে হয়রানি করে আসছে। উক্ত জমিজমা সংক্রান্ত ব্যাপারে আদালতে মামলা রয়েছে। আদালতে যা রায় দিবে আমরা তা মাথাপেতে নিবো। কিন্তু একজন সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) কিভাবে আমাদের জানমালের নিরাপত্তা না দিয়ে বাড়ীতে গিয়ে গালিগালাজসহ গায়ে হাত তুলছে। মারামারি না হওয়ার পরেও তদন্ত ছাড়াই গাই— ৫১, জিআর ৪৭০/২২ মামলা রুজু করে মামলাহীন ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে এসে আসামীকে ৪২ ঘন্টা আটক রাখেন। পরে মিথ্যা মামলা দিয়ে আদালতে পাঠান। উল্লেখ্য মোঃ জামরুল ঐ মামলার আসামী সে একজন মেরুদণ্ড অপারেশনের রোগী। আমরা এসআই মাহিদুল ইসলামের জুলুম, অত্যাচার, নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে তদন্ত সাপেক্ষে তার প্রতিকার চেয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

All Rights Reserved © 2022 Gaibandha Report

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন